তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৪ প্রকাশিত!

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৩ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়াধীন জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের রাজস্ব খাতের নিম্নবর্ণিত ২৬ টি শূন্যপদ পুরণ করার লক্ষ্যে প্রকৃত বাংলাদেশি নাগরিকদের নিকট হতে আবেদনপত্র আহবান করা যাচ্ছে।

সম্প্রতি ১৭ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ প্রকাশিত  তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় চাকরি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩ এর যাবতীয় তথ্য নিচে তুলে ধরা হয়েছে। আগ্রহী ও যোগ্য ব্যক্তিদের আবেদন করার আহব্বান করা হচ্ছে। তবে আগামী ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩ তারিখের মধ্যে আবেদন করার জন্য বলা হয়েছে।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২৩ এর যাবতীয় তথ্য

প্রতিষ্ঠানের নাম তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়
চাকরির ক্যাটাগরি সরকারি মন্ত্রণালয়ে চাকরি
বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ ১৭ নভেম্বর ২০২৩
পদের সংখ্যা ২৬ 
বয়স সর্বোচ্চ ৩০ বছর
শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি,এইচএসসি, স্নাতক
আবেদনের মাধ্যম অফলাইন
আবেদন ফি ১১২,২২৩ 
আবেদন শুরু ২৬ নভেম্বর ২০২৩
আবেদন শেষ ২৪ ডিসেম্বর ২০২৩
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.moi.gov.bd

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় নিয়োগ ২০২৩

Ministry Of Information and Broadcasting Job Circular 2023  ছাড়াও সরকারি বেসরকারি সব ধরনের চাকরির খবর সবার আগে পাবেন newjobscircular.com ওয়েবসাইটে।তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় চাকরি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩ এর আবেদন পক্রিয়া,আবেদনের সময়সীমা, যোগ্যতাসহ যাবতীয় তথ্য দেখতে নিচের ছবিটি লক্ষ্য করুন। Ministry Of Information and Broadcasting Job Circular 2023 apply এ উল্লিখিত পদে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অন্যান্য শর্তাবলী নিয়ে উল্লেখ করা হলোঃ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় আবেদনের নিয়ম ও শর্ত

  1. প্রার্থীদের বয়স ১৯.১১.২০২৩ খ্রি: এ ন্যুনতম ১৮ (আঠারো) বছর এবং ৩০ (তিরিশ) বছর তারা আবেদনের যোগ্য। তবে মুক্তিযোদা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র কন্যা/প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়স সর্বোচ্চ ৩২ (বত্রিশ) বছর তারাও আবেদনের যোগ্য।
  2. শুধু বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিকগণ আবেদন করতে পারবেন।
  3. কোনো পদে সরাসরি নিয়োগের জন্য কোনো ব্যক্তি যোগ্য বলিয়া বিবেচিত হবেন না যদি তিনি-বাংলাদেশের নাগরিক না হন, অথবা বাংলাদেশের স্থায়ী বাসিন্দা না হন কিংবা এমন কোনো ব্যক্তিকে বিবাহ করেন অথবা বিবাহ করার জন্য প্রতিশতিব্ধ হন, যিনি বাংলাদেশের নাগরিক না।
  4. নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারের বিদ্যমান বিধি বিধান এবং পরবর্তীতে এ সংক্রান্ত বিধিবিধানে কোন সংশোধন হলে তা অনুসরণ করা হবে
  5. প্রার্থী নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রচলিত সরকারি বিধি মোতাবেক সকল ধরণের কোটা পদ্ধতি/নীতি অনুসরণ করা হবে।
  6. প্রা্থীগণের বয়সের ক্ষেত্রে কোন এফিডেভিট গ্রহণযোগ্য নয়।
  7. অসম্পূর্ণ বা  ত্রুটিপূর্ণ আবেদনপত্র সরাসরি বাতিল বলে গণ্য হবে।
  8. সরকারি, আধা-সরকারি এবং স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত প্রা্থীদের অবশ্যই কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে আবেদন করতে হবে। তবে সরকারি, আধা-সরকারি এবং সায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে চাকরিরত প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষার সময় নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত অনাপত্তি ছাড়পত্রের মূলকপি জমা দিতে হবে।
  9. মৌখিক পরীক্ষার সময় সকল সনদপত্রের মুূলকপি প্রদর্শন করতে হবে এবং পূরণকৃত  সহ সত্যায়িত একসেট ফটোকপি দাখিল করতে হবে। এছাড়া জেলার স্থায়ী বাসিন্দার প্রমাণক হিসাবে ইউনিয়ন গরিষদ/পৌরসভা/সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক প্রদত্ত সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি এবং আবেদনকারী মুক্তিযোদধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের পুন্র-কন্য/পত্র-কন্যার পুত্র কন্যা মহিলা, এতিম, প্রতিবন্ধী, ক্ষুদ্র নৃ-গোঠী প্রার্থীদের সর্বশেষ নীতিমালা অনুযায়ী উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের সার্টিফিকেট মৌখিক পরীক্ষার সময় উপস্থাপন করতে হবে।
  10. কেউ প্রকৃত তথ্য গোপন করে চাকুরি গ্রহণ করলে নিয়োগ বাতিলসহ তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে|
  11. পদভেদে প্রয়োজনীয় ব্যবহারিক পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। ব্যবহারিক/বাছাই/লিখিত পরীক্ষা/সাক্ষাৎকারের জন্য কোনরকম ভ্রমণভাতা বা দৈনিকভাতা (টিএ/ডিও প্রদান করা হবে না।.
  12. নিয়োগের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের (অধিদফতরের) সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত বলে গণ্য করা হবে।

Ministry Of Information and Broadcasting MOI Job Circular 2023

Source: Daily Sun, 17 November 2023

Application Deadline: 24 December 2023

রূপকল্পঃ গতিশীল, অংশগ্রহণমূলক ও স্বচ্ছ তথ্যপ্রবাহ ব্যবস্থাপনা।

অভিলক্ষ্যঃ সরকারি ও বেসরকারি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানসমূহকে শক্তিশালী করার মাধ্যমে অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক তথ্যের প্রবাহধারায় জনগণকে সম্পৃক্ত, অবহিত, সচেতন ও উদ্বুদ্ধকরণ এবং জনগণের তথ্য প্রাপ্তির অধিকার নিশ্চিতকরণ।

পটভূমিঃ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়। স্বাধীনতা-পূর্ব প্রাদেশিক সরকারের নীতি ও  বিভিন্ন কর্মসূচি সম্পর্কে জনগণকে অবহিত করার জন্য ‘তথ্য বিভাগ’ নামে একটি দপ্তর গঠন করা হয়। তৎকালীন ১৯টি জেলা তথ্য কর্মকর্তার মাধ্যমে এ বিভাগের কার্যক্রম পরিচালিত হতো। স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭২ সালে ‘তথ্য ও বেতার মন্ত্রণালয়’ নামে একটি পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রণালয় গঠন  করা হয়। পরবর্তীকালে সকল দায়িত্ব অক্ষুণ্ন রেখে মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‘তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়’ করা হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *